ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল ইতিহাস

কলকাতায় গেছেন অথচ ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হল দেখেননি এমন লোক খুব কমই আছেন। যেসব স্থাপনা ভারতে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের চিহ্ন বয়ে বেড়াচ্ছে তার মধ্যে কলকাতার ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল অন্যতম। এটি ভারতের অন্যতম ঐতিহ্য, যা দেশি-বিদেশি পর্যটককে আকর্ষণ করে। আমি কলকাতা ভ্রমণে গেলে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল অবশ্যই ঘুরে আসি, কখনো এটি পুরনো মনে হয় না। বার বার দেখা সত্ত্বেও ছুটে যাই ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে।

যে কথা বলছিলাম, প্রকৃতপক্ষে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হলো রানী ভিক্টোরিয়ার স্মৃতিসৌধ। কলকাতা ময়দানের দক্ষিণ কোণে অবস্থিত এবং সুরম্য উদ্যান পরিবেষ্টিত শ্বেতপাথরে নির্মিত মেমোরিয়ালটি। এর নির্মাণ শুরু হয় ১৯০৬ সালে। এরপর সৌধটির উদ্বোধন হয় ১৯২১ সালে। আয়ারল্যান্ডের বেলফাস্ট সিটি হলের স্থাপত্যশৈলীর আদলে এ স্মৃতিসৌধের নকশা প্রস্তুত করেন স্যার উইলিয়াম এমারসন।

ব্রিটিশ সরকারের পক্ষ থেকে তাকে বলা হয়েছিল ইতালিয়ান রেনেসাঁর স্থাপত্যশৈলীতে এটি নির্মাণ করতে। শুধু ইউরোপীয় স্থাপত্যের আদলে গড়তে বিরোধিতা করেন উইলিয়াম। তিনি তার কাজে মুঘল ছাপও যুক্ত করেন। তাই এটি দেখতে অনেকটা আগ্রার তাজমহলের মতো। অনেকেই ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালকে পশ্চিমবঙ্গের তাজমহল বলে আখ্যায়িত করেন। স্মৃতিসৌধটিকে ঘিরে তৈরি হয়েছে বিশাল এক উদ্যান।



ওই সময় এ উদ্যানের নকশা করেছিলেন লর্ড রেডেসডেল ও জন প্রেইন। তখন থেকে আজো উদ্যানটি ধরে রেখেছে তার সৌন্দর্য। আজো কলকাতাবাসী সকাল-বিকালে প্রকৃতির ছোঁয়া পেতে ছুটে আসেন এখানে। সবচেয়ে বেশি ভিড় পরিলক্ষিত হয় প্রাতঃভ্রমণের সময়। পড়ন্ত বিকালে শিশুদের নিয়ে সময় কাটাতে চলে আসেন অভিভাবকরা। সৌধের সর্বোচ্চ গম্বুজে বিউগল-ধারিণী বিজয়দ্যোতির একটি কালো ব্রোঞ্জমূর্তি রয়েছে। বায়ুপ্রবাহ শক্তিশালী হলে বল-বেয়ারিংযুক্ত একটি পাদপীঠের ওপর স্থাপিত মূর্তিটি হাওয়া মোরগের কাজ করে। সৌধের সম্মুখভাগে রয়েছে শ্বেতপাথরের কয়েকটি সিঁড়ি। এসব সিঁড়ি বেয়ে উঠতে হয় মূল ভবনে।

ভবনের ভেতরে রয়েছে একটি জাদুঘর। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের ইতিহাস ও নিদর্শন দেখতে পাওয়া যায় এখানে। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালের পাশে অর্থাত্ বারান্দার দিকে স্থাপন করা আছে একটি অস্থায়ী মঞ্চ। মঞ্চের সামনে দর্শকদের জন্য সারিবদ্ধভাবে রাখা চেয়ার। বিশেষ দিনে এখানে বিভিন্ন রকম অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেই সঙ্গে এখান থেকে লেজার ওয়াটার শো দেখানোর ব্যবস্থা রয়েছে। রাতের ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল দেখতে খুবই সুন্দর। দূর থেকে মনে হয় কোনো স্বপ্নপুরী বা কল্পলোকের অট্টালিকা। যে কাউকেই বিমোহিত করতে পারে এর সৌন্দর্য। মুগ্ধ হতে পারেন এর ইতিহাস-ঐতিহ্যে। ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল হল আজো মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে কলকাতা শহরে।