গৌতম বুদ্ধ

গৌতম বুদ্ধ বৌদ্ধ ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা নন, শেষ প্রবক্তা মাত্র। এখান থেকেই গৌতম বুদ্ধের চরিত্র নির্মাণের প্রয়োজন। গৌতম বুদ্ধকে বানানো হল বৌদ্ধধর্মের প্রতিষ্ঠাতা।
গৌতম বুদ্ধ হচ্ছেন ২৪ তম বুদ্ধ। গৌতম বুদ্ধের আরেকটা নাম হচ্ছে শাক্যসিংহ / শাক্যমনি। শাক্যমুনি শেষ বুদ্ধ, জৈন ধর্মের মহাবীর শেষ তীর্থঙ্কর দু’জনেই এক সময়ের লোক। দু’জনেই খ্রিস্ট পূর্ব ছয় শতের লোক। সুতরাং দীপঙ্কর প্রভৃতি ২৪ জন বুদ্ধ আর ঋভষদেবাদি ২৪ জন তীর্থঙ্কর তাহাদের অনেক পূর্বে আবির্ভূত হইয়াছিলেন।



অনেকে বলেন যে শাক্যসিংহের পূর্বে যে ২৩ জন বুদ্ধ হইয়াছিলেন, তাহারা মানুষ নন-বৌদ্ধরা আপনাদের ধর্মটা পুরানো, তাই দেখাইবার জন্যই ২৪ টা নাম করিয়া রাখিয়াছে। কিন্তু শাক্যসিংহের পূর্ববর্তী কনকমুনির খাম্বা পাওয়া গিয়াছে, যেখানে তাহার নির্বাণ লাভ তাহা স্থির হইয়াছে; তাহাকে মানুষ নয় বলা এখন কঠিন হইয়া দাঁড়াইয়াছে।