বিচার ব্যবস্থার ইতিহাস

১) সুমেরীয় বিচার ব্যবস্থা--বিকল্প নিস্পত্তির বিধান সর্ব প্রথম শুরু হয় এই শাসনামলে।

২) বেবিলনীয় বিচার ব্যবস্থা--সর্ব প্রথম অর্থ দন্ড,রায়ের বিরুদ্ধে আপীল,মৃত্যুদন্ডের বিধান চালু হয়।

৩) মিশরীয় বিচার ব্যবস্থা-- এই সময় প্রথম লিখিত ভাবে আর্জি,জবাব দাখিল করা হত,এই সময় শাস্তির ধরন ছিল কিছুটা এই রকম।

(ক) মিথ্যা স্বাহ্মী দিলে মৃত্যুদন্ড।

(খ)শ্বাসরোধ ও পুড়িয়ে মৃত্যুদন্ড।

(গ) উচ্চশ্রেনীর মানুষ দের মৃত্যুদন্ডের শাস্তির লজ্জা থেকে বাঁচার জন্য আত্নহত্যার অনুমতি।

৪) আসিরীয় বিচার ব্যবস্থা--দেবতা অসুরের নামে সব আদেশ নির্দেশ ও আইন ঘোষিত হত। এ সময়ের শাস্তির ধরন ছিল ভাগ্যের উপর। যেমন আসামিকে নদীতে ফেলে দিলে যদি বেঁচে উঠতো তাহলে সে নির্দোষ, না হলে ডুবে মরতো। দেবীর সামনে আসামি কে পুরিয়ে দেওয়া হত, যদি আগুন নিভে যায় তাহলে সে নির্দোষ, না হলে পুড়ে মরতো।

৫) জুডিয় বিচার ব্যবস্থা--এ সময় হত্যার পরিবর্তে হত্যা,দাঁতে বদলে দাঁত ইত্যাদি ছিল শাস্তির বিধান।

৬) পারসিক বিচার ব্যবস্থা-- এই সময় বিচারকের ঘুষ নেওয়া, ঘুষ দেওয়ার শাস্তি মৃত্যুদন্ড।অসৎ বিচারকের জীবন্ত অবস্থায় শরীরের চামড়া তুলে নিয়ে মৃত্যুদন্ড দেওয়া হত।

৭) চীনের বিচার ব্যবস্থা--বেশি ভাগ বিরোধ সালিসের মাধ্যমে নিষ্পন্ন করা হত। শুধু অপরাধের বিচার রাজআদালতে করা হত।

8) গ্রিক বিচার ব্যবস্থা--এই সময়ের বিচার ব্যবস্থা অনেকটাই ন্যায় ও সঠিকভাবে পরিচালনা করা হত।

এই ভাবে প্রাচীন কাল থেকে ধীরে ধীরে বিচার ব্যবস্থার পরিবর্তন হয়ে বর্তমান অবস্থায় এসে পৌঁছেছে।